Saturday, July 11, 2015

কলিং বেল

-কী ব্যাপার, কে আপনি? এত রাতে এমন ফ্র্যান্‌টিক্যালি কেউ কলিং বেল বাজায়?

-সরি। কিন্তু এমন বিপদে পড়েছি। কোনও উপায় না পেয়ে শেষে...। 

-ব্যাপারটা কী হয়েছে একটু খুলে বলবেন?

-আজ্ঞে আমি অরিন্দম সাহা। ইয়ে, ভীষণ নার্ভাস লাগছে। ভেতরে আসতে পারি? প্লীজ ডোন্ট ওরি। আমার কাছে কোন অস্ত্র নেই। এই দেখুন পকেট ফাঁকা।
 
-আমি অমিয় দত্ত। ভেতরে আসুন।

-থ্যাংকস।

-হয়েছেটা কী?

-আমি একজন রিয়েল এস্টেট এজেন্ট। এ পাড়ায় এসেছিলাম একটা নেগোশিয়েশনের ব্যাপারে। ওই সাব্রেওয়ালের বাড়িতে। সেখানেই এত রাত হয়ে গেল। টাফ্‌ ডিল ছিল একটা। 

-সাব্রেওয়ালের বাড়ি তো কাছেই। তাকে আমি ভালো করে চিনি। কিন্তু গণ্ডগোলের কী হল?

-আসলে নিজের গাড়ি আনিনি। এত রাত্রে পাড়ার মধ্যে তো আর ট্যাক্সি পাব না। ভেবেছিলাম মেইন রাস্তায় গিয়ে একটা কিছু ব্যবস্থা করে নেব। কিন্তু আপনার বাড়ির পাশের ওই গলিটা দিয়ে পেরোতেই ওরা এমন ভাবে অ্যাটাক করল।

-ওরা কারা? আপনাকে অ্যাটাক করল কেন? এতদিন এ পাড়ায় আছি। চুরি ডাকাতি হতে তো শুনিনি।

-না না। এরা ইউসুয়াল চোর ডাকাত নয়। রিয়েল এস্টেটের ব্যাপার। বুঝতেই পারছেন। শত্রু থাকেই।

-আপনাকে শেল্টার দিতে গিয়ে আবার আপনার শত্রুদের টেনে আনছি না তো?

-না না, ওরা এতক্ষণে ভেগেছে। 

-আই সি। কী ব্যাপার? আপনি কী কিছু খুঁজতে শুরু করলেন নাকি? অমন ছটফট করছেন কেন অরিন্দমবাবু?

-যা:, কাণ্ড দেখেছেন? রাস্তায় পড়ে রয়েছে নিশ্চয়ই। ছিঃ, ছিঃ। 

-রাস্তায় কিছু ফেলে এসেছেন নাকি? মানিব্যাগ? কাগজপত্র? 

-না না, সেসব নয়। 

-তবে কী?

-বডিটা, আমার বডিটা।

-হোয়াট ননসেন্স। যেচে বাড়িতে ঢুকে লেগ পুল করতে চাইছেন?

-লেগ পুল তো আপনি করতে চেয়েছিলেন অমিয়বাবু। সাব্রেওয়াল তো আপনাকে টেক্কা মেরেই বাইপাসের ধারের জমিটা হাতিয়েছে। সেকেন্ড লোয়েস্ট বিড্‌ তো আপনারই ছিল। তাই না অমিয়বাবু? আর ওদের তো বোধ হয় আপনিই লাগিয়েছিলেন আমার পিছনে,তাই না? একটু ভয় দেখিয়ে কড়কে দিতে? আপনার পোষা ছেলেরা ভয় দেখাতে গিয়ে যে একটু বাড়াবাড়ি করে ফেললে অমিয়বাবু। সেই রিপোর্টটা আপনাকে দিতেই তো এত রাত্রে আপনার কলিং বেল বাজানো।

-শাট আপ। বেরিয়ে যান আপনি। আমি পুলিশ ডাকব।

-পুলিশ ডাকতে পারেন। আফটার অল দু'টো লাশ উঠিয়ে মর্গে নিয়ে যাওয়ার আছে, তাই না?

No comments:

হাবুডুবু

- ইয়ে...। - তুমি অসময়ে ইয়ে বললেই আমার বুক কাঁপে..। - তুমি না! বড্ড পেসিমিস্ট। - নয় নয় করে কুড়ি বছর সংসার করছি৷ তোমার এই ধান্দাবা...