Tuesday, July 21, 2015

ডমিনো

লাশের দিকে চেয়ে থাকতে থাকতে একটা বেশ চনমনে মন কেমনের ভাব আসে। ব্লজ্ঞপ্রাণের মনের মধ্যেও সেইরকমই একটা শিরশিরে ভাব। খানিকক্ষণ ছটফট করেছিল বইবপনবাবু মারা যাওয়ার আগে। বইবপনের বুকে ছুরিটা বসাতে একটুও ভুল হয়নি ব্লজ্ঞপ্রাণের। দু'টো পাঁজরার মাঝখান দিয়ে সটান ঢুকিয়ে দেওয়া। সঠিক পয়েন্ট জানা থাকলে বুকে ছুরি ঢোকানো এক তাল নরম মাখনে ছুঁচ ঢোকানোর চেয়েও সহজ।
মৃতদেহর প্রতি মায়া বোধ হয় খুব সহজে আসে। ব্লজ্ঞপ্রাণের চোখে সামান্য স্নেহ চিকচিক করে উঠছিল বোধ হয় বইবপনের লাশটার দিকে তাকিয়ে। অথচ খুন করার আগে ব্যাটার দিকে তাকিয়ে এক ফোঁটাও অনুকম্পা আসেনি। পকেট থেকে সিগারেটের প্যাকেটটা বের করলে ব্লজ্ঞপ্রাণ। 
**

টুঁটি টিপে মেরে ফেলাটা সহজ নয়। তবে এই কাজটাতে শ্রীমান ফেবুপেমনকে বিশেষ বেগ পেতে হয় না। অভ্যাসে কী না হয়। ব্লজ্ঞপ্রাণ সিগারেট ঠোঁটে ঝুলিয়ে সবে পাঞ্জাবীর পকেট হাতড়াতে শুরু করেছিল দেশলাই খুঁজতে। ঠিক তখনই পিছন থেকে এসে ডান হাতটা দিয়ে সাঁড়াশির মত ব্লজ্ঞপ্রাণের গলাটা চেপে ধরে ফেবুপেমন। পাক্কা আড়াই মিনিটের ব্যাপার। মুখ দিয়ে টুঁ শব্দটি বের হয়নি ব্লজ্ঞপ্রাণের; অল্প সময়ের মধ্যেই ঠোঁটের বাঁ দিক ঘেঁষে একটা রক্তের ধারা নেমে আসে।

অত্যন্ত তৃপ্তির সঙ্গে ব্লজ্ঞপ্রাণের নিথর দেহটা ফুটপাথে শুইয়ে রেখে পাশের বাস স্টপের বেঞ্চিতে একটু এলিয়ে বসে ফেবুপেমন। বড় ঝক্কির দিন গেছে। ব্লজ্ঞপ্রাণের পকেট থেকে সিগারেটের প্যাকেট আর দেশলাইটা আগেই বের করে রেখেছিল সে। সিগারেট ধরিয়ে চটপট কয়েকটা ধোঁয়ার রিং ভাসিয়ে দিল ফেবুপেমন। আহ! তৃপ্তি। গুনগুন করে " ছু কর মেরে মন কো কিয়া তুনে কেয়া ইশারা"র সুর ভাজতে শুরু করলে সে।

**
ট্যুইটঙ্কার মুখার্জির ভারী মিষ্টি লাগছিল জানালার ধারে বসে থাকতে। রাত দেড়টার সময় শহরটা এত শান্ত হয়ে যায়, যে তাকে ঘুমন্ত কুকুরছানার মত আদর করতে মন চায় ট্যুইটঙ্কারের।

ট্যুইটঙ্কারের আট তলার জানালার নিচেই বড় রাস্তা। রাস্তার ওপারে বাস স্টপ। বাস স্টপের পাশে বেঞ্চি। স্ট্রীট ল্যাম্পটা বিগড়েছে আজ, তাই আবছায়াতে বেঞ্চিটাকে কালো মনে হচ্ছিল; যদিও ট্যুইটঙ্কার জানে যে বেঞ্চির রঙ আসলে সবুজ। বেঞ্চিতে যে একটা আবছা অবয়ব বসে; সে প্রায় অন্ধকারে মিশে থাকলেও ট্যুইটঙ্কার জানে যে তার নাম ফেবুপেমন। ট্যুইটঙ্কার আশা করেছিল যে ফেবুপেমন আজ এসে এই বেঞ্চিতে বসবে। যাক। স্নাইপারের নলটা জানালায় গুঁজে স্নাইপার-ফোকাসে চোখ রাখলে ট্যুইটঙ্কার। ফোকাসটা অ্যাডজাস্ট করে ফেবুপেমনের মাথাটা নিশানায় মেপে নীল সে। ট্রিগারে আঙুল রেখে মিহি সুরে গান ধরলে ট্যুইটঙ্কার; "...বদলা ইয়ে মউসম, লাগে পেয়ারা জগ সারা..."।


**
ট্যুইটঙ্কারের ভূমিকায় - 
ট্যুইটার পেজ https://twitter.com/mtanmay


ফেবুপেমনের ভূমিকায় - 
ফেসবুক পেজ https://www.facebook.com/bongpen.net


ব্লজ্ঞপ্রাণের ভূমিকায় - 
ব্লগ www.bongpen.net


বইবপনের ভূমিকায় -
অচেনা পুরনো বই 
http://www.amazon.in/Bong-Pen-Tanmay-Mukherjee/dp/1621543471/ref=la_B00J4T7038_1_1?s=books&ie=UTF8&qid=1437418287&sr=1-1

1 comment:

shromana chatterjee said...

darun :)
erom tae expect korclam porar somoy.

ধপাস

সাঁইসাঁই। সাঁইসাঁই। সাঁইসাঁই। পড়ছি তো পড়ছিই। পড়ছি তো পড়ছিই। পড়ছি তো পড়ছিই। পড়ছি তো পড়ছিই। বহুক্ষণ পর আমার পড়া একটা প্রবল 'ধপ...