Thursday, November 14, 2019

প্রাণ ও দেবতা

প্রাণ 


রাস্তার ধারের সাজানোগোছানো খাবারদাবারের দোকানের সামনে মাঝেমধ্যেই দাঁড়িয়ে পড়তে ইচ্ছে হয়। ইচ্ছেটুকু সম্পূর্ণ যে খিদে-নির্ভর তা নয়। দোকানির ব্যস্ততা, থরেথরে সাজানো বিভিন্ন রকমের 'আইটেম',খাইয়েদের উঁকিঝুঁকি আর অর্ডার/আব্দার; যাবতীয় গোলমাল সত্ত্বেও মানুষের বেঁচে থাকার এমন অকাট্য প্রমাণ আর 'টাই বা আছে।

দেবতা 



মেলায়/ঠাকুর দেখতে বেরিয়ে একটানা হেঁটে হদ্দ হয়ে পায়ের যে টনটনে ব্যথা;
তার উপশম তেলমালিশে বা ম্যাজিকস্প্রেতে ঘটে কিনা কে জানে, তবে সে যন্ত্রণাভার লাঘব করতে এক ঠোঙা গরম জিলিপির যে জুড়ি নেই তা হলফ করে বলতে পারি।

No comments:

বাইশের দুই বিনোদ দত্ত লেন

- কাকে চাই? - ম্যাডাম, এ'টা কি অমলেশ সমাদ্দারের বাড়ি? - ওই ঢাউস নেমপ্লেটটা চোখে পড়েনি? ও'টায় কি অমলেশ সমাদ্দার লেখা আছে?...