Friday, July 14, 2017

এ পাশে

ভাবনার এ পাশে দাঁড়িয়েছিলেন অনন্ত।

স্পষ্ট দেখতে পাচ্ছিলেন অন্যপাশে জুটের কারখানার ধোঁয়া। অনর্গল, এই রাতেও।

ভাবনার বুক ছুঁয়ে মিঠে হাওয়াটুকু অবশ্য আসে, ভালো লাগে অনন্তর। ঘাটের বেঞ্চিটায় গা এলিয়ে বসে সে। রাতের এ সময়টা সামান্য শীত বোধ হয়।

দূরে ভাবনার বুকে একটা নৌকা স্থির হয়ে আছে, তার বুকে হ্যারিকেনের বিন্দুটা মায়াবী দানার মত জ্বলজ্বল।করে চলেছে। ভাবনার নিঃশব্দ অথচ স্পষ্ট বয়ে চলায় গান খুঁজে পায় অনন্ত;

আবছায়া ভালো লাগার গান।
ক্রমশ আকাশ একটু নীচে নেমে আসে। ক্রমশ আদুরর সমস্ত কিছু। বুক পকেট থেকে বিড়ির প্যাকেট বের করে অনন্ত।

আচমকা ঘোর কেটে যায় বেমানান স্টীমারের হুইসেলে।

- ঘুমোসনি, না?
- হেহ্।
- জানতুম।

No comments:

ধপাস

সাঁইসাঁই। সাঁইসাঁই। সাঁইসাঁই। পড়ছি তো পড়ছিই। পড়ছি তো পড়ছিই। পড়ছি তো পড়ছিই। পড়ছি তো পড়ছিই। বহুক্ষণ পর আমার পড়া একটা প্রবল 'ধপ...