Sunday, December 20, 2015

ঘুম আসার ব্যাপার

১।
- এ কী! ঘুমোওনি?
- নাহ। ঘুম আসছে না কিছুতেই।
- একটা টোটকা বলি?
- বল।
- মনে কর বড় রেস্তোরাঁয় ভেজ কাবাব প্ল্যাটারের অর্ডার দিয়েছিস।


২। 
- নাহ। ঘুম আসছে না।
- আসছে না?
- এক টানা চোখ বুজে আছি। নাথিং ডুয়িং।
- উপায় আছে।
- আছে?
- আছে।
- শুনি।
- গাড়ি ছাড়া দিলওয়ালের কথা ভাব।


৩। 
- আরে শালা। কিছুতেই ঘুম আসছে না।
- হোয়াই সো রেস্টলেস্‌?
- জানি না। চাদর গায়ে ঠাণ্ডা লাগছে। কাঁথা গায়ে ঠাণ্ডা লাগছে। 
- খবরের কাগজ গায়ে দে। কাগজের নরম, গুলের গরম। পারফেক্ট ব্যালেন্সে নেচে নেচে ঘুম আসবে।


৪।
- নাহ্‌। তাও জুত হছে না। চোখের পাতা ভারী হচ্ছে না। মাথার ভিতরটা নরম হয়ে আসছে না। বডি ঘুমকে কনসিভ্‌ করার জন্য এখনও প্রিপেয়ার্ড নয়। ক্যাফেইনের এগজ্যাক্ট অপোজিট কিছু আছে কী?
- তাও আছে।
- ক্যাফেইনের এগজ্যাক্ট অপোজিট?
- ইয়েস। 
- কী?
- পান্নালাল। ব্রেনের ভাইব্রেশনে তুলসী পাতা ফ্লেভারের জেন্টল ইস্তিরি। এম্পি থ্রীতে। চালিয়ে দে।

No comments:

বাইশের দুই বিনোদ দত্ত লেন

- কাকে চাই? - ম্যাডাম, এ'টা কি অমলেশ সমাদ্দারের বাড়ি? - ওই ঢাউস নেমপ্লেটটা চোখে পড়েনি? ও'টায় কি অমলেশ সমাদ্দার লেখা আছে?...