Saturday, April 9, 2016

পেয়ারেলালের নিলাম

- নাম?
- পেয়ারেলাল।
- পেয়ারেলাল কী?
- পেয়ারেলাল। ব্যাস। 
- পদবী?
- ভূতের আবার পদবী!
- আচ্ছা বেশ। বয়স? 
- জন্ম থেকে না মৃত্যু থেকে?
- অকশনের কোয়ালিফিকেশন রুল্‌স দেখা আছে কি নেই?
- গরীব ভূত। চাষা  ভূত। নিয়ম কানুন দেখালে হবে স্যার?
- দশ বছরের বেশি পুরনো মড়া হলে চলবে না।
- আমার ওই বছর সাতেক হয়েছে। 
- আঁধার কার্ড দেখি?
- এই যে।
- হুঁ। ঠিক হ্যায়। 
- আজ্ঞে, নিলাম ডাকা ক'টা থেকে শুরু? 
- এই কয়েক ঘণ্টার মধ্যে শুরু হবে। ক্রেডেনশিয়ালস্‌ কই?
- আজ্ঞে?
- চাষাদের নিয়ে এই অসুবিধে। নিয়মকানুন পড়ার ক্ষমতা নেই অথচ এদের ভূতদের নিয়েই অকশন। শুনুন, আমি যে'টা বলছি; মানে, আপনার ক্ষমতার লিস্ট চাই! তুকতাকের দম কতটা! ভেল্কি দেখানোর ক্ষমতা কতটা! সে ফর্ম ফিল আপ করা আছে?
- মরার আগে টিপ সই দিতাম। 
- আচ্ছা বেশ। আপনি বলে যান। আমি টুকে নিচ্ছি। 
- বঢিয়া।
- তার আগে বলে দিই এ নিলামে আপনাকে কে কিনবে সে খবর  রাখেন তো?
- সে'সব জানি। আইপিএলের আটটা টিম ভূত কিনবে। চাষাদের ভূত। টিমকে জিততে সাহায্য করতে হবে। আর অপনেন্ট কে গুলিয়ে দিতে হবে। 
- কারেক্ট। এবারে বলুন। ব্যাটসম্যানদের সাহায্য করতে কী কী পারবেন আপনি? ব্যাটে ঢোকার ক্ষমতা আছে? ব্যাটে ঢুকে ভেল্কি দেখানোর?
- বিলকুল আছে। 
- ভেরি গুড।
- বলে ঢুকে বোলারদের হেল্প করতে পারবেন?
- বিলকুল। 
- ভেরি ভেরি গুড। আপনার বেস্‌ প্রাইস ওপরের দিকেই থাকবে।
- অপোনেন্ট ব্যাটসম্যান বা বোলারদের ব্যাটে বলে ঢুকে থাকা ভূতদের সঙ্গে কুস্তি করতে পারবেন?
- জরুর। 
- চমৎকার। আর ইয়ে। হাওয়ায় ভেসে গিয়ে মাঠ জুড়ে ছোট ইয়ে করে আসতে পারবেন? অপোনেন্ট বোলিংকে ডিউ প্রবলেমে কিস্তি মাত করার জন্য?
- ছোট ইয়ে? সে'টা কী সাহেব?
- ছোট বাথরুম।
- পেচ্ছাপ?
- আহ্‌! রাস্টিক ভাবে বলবেন না প্লীজ। প্লীজ। ইয়ে, পারবেন?
- ভূত হয়ে সে ক্ষমতা বহুত বেড়ে গেছে।
- যাক গে। ব্রিলিয়ান্ট। 
- পিচে থুতু ফেলে স্যুইংয়ে অ্যাসিস্ট করতে পারবেন?
- যেখানে বলবেন সেখানেই। থুতুই তো। ভূতদের বাছবিচার নেই ও'সবে। 
- বাহ্‌! সবেতেই তো টিক পড়ল। আপনাকে নিয়ে বেশ টানাটানি হবে। বুঝতেই পারছি। তাহলে বেস প্রাইস কত রাখা যাবে আপনার?
- বেস কী? 
- বেস প্রাইস! যার জন্যে আপনি নিলামে হতে এসেছেন।
- শুনলাম জল পাওয়া যাবে। 
- অফ কোর্স যাবে। ধরুন আপনার বেস প্রাইস যদি কুড়ি হাজার লিটার জল হল! আর তার মাথায় ডাকাডাকি করে ধরুন গিয়ে সে প্রাইস গিয়ে ঠেকলো তিরিশ হাজার লিটার জলে; তো সেই পরিমাণের জল আপনার ফ্যামিলির কাছে পৌঁছে দেবে সেই টিম যে আপনাকে কিনবে।
- যাক। মরে একটা কাজের কাজ হল। প্রতি বছরই এ নিলাম হবে তো?
- অফ কোর্স। চাষা ভূতদের অকশনটা প্রতি বছরই হতে চলেছে।
- তিরিশ হাজার লিটার জল। অনেক না?
- অনেক মানে? ভাবতেও পারবেন না। 
- গম ফলবে তাহলে? 
- বিলকুল। 
- ছেলেটাকে সামনের নিলামে তাহলে আর এখানে দেখতে হবে না হয়তো। এটা ভালোই হল। 
- ওহ। ইয়ে। যাক গে। এইখানে একটা টিপসই প্লিজ।  

3 comments:

Anonymous said...

ছিঃ ছিঃ। সা্রকাসের আঙিনায় তেরঙ্গার পত্ পত্ বন্ধ করার প্রয়াস মোটেও কাম্য নয়।

Unknown said...

boddo valo..

CHAUDHURI FINANCE said...

আপনার লেখাগুলি বেশ সুন্দর। ভালো লাগলো।

অনুরাগের লুডো

অনুরাগবাবু আমার অত্যন্ত প্রিয়৷ তার মূলে রয়েছে "বরফি"। লোকমুখে ও বিভিন্ন রিভিউয়ের মাধ্যমে জেনেছি যে বরফিতে ভুলভ্রান্তি ...