Saturday, May 7, 2016

রেজাল্টের পরে

- এটা কোন রেজাল্ট হল অপাই?
- মানে...ফিজিক্সটায় এতটা ধ্যাড়াবো ভাবিনি...।
- কোথায় টপাটপ নাইনটি ফাইভ পারসেন্ট পাবি...তা না...।
- এতটা খারাপ হবে সেটা ভাবিনি বাবা।
- ধুস। সমস্ত জলে। পুরীর টিকিটটাই জলে গেলো।
- সে কী! ঘুরতে যাব না? বাবা!! শুধু নম্বরটাই দেখলে? আমার বয়েসের ক'টা ছেলে বিউলির ডালের বড়া ভাজতে পারে?
- শাট আপ অপাই। ভদ্দরলোকের এক কথা।
- কোন কথা?
- বাহ রে! সেই যে। এগজ্যামের আগে। দ্বিতীয় চিলেকোঠার চুক্তি হল। ভালো রেজাল্টে সমুদ্র; হুল্লাট মস্তি।
- তুমিও মস্তি বলবে বাবা?
- সরি। ভালো রেজাল্টে সমুদ্র। এন্তার ফুর্তি।  খারাপ রেজাল্টে পাহাড়।  কনটেম্পলেশন। চিন্তন।
- তাহলে তুমি সাততাড়াতাড়ি রেজাল্ট বেরোনোর আগে টিকিট কাটতে গেলে কেন?
- মনে হচ্ছিল উতরে দিবি।
- টেস্টের রেজাল্ট দেখে অন্তত তোমার দু'বার ভেবে নেওয়া উচিৎ ছিল।
- এবার উপায়?
- পুরী গিয়ে কন্টেম্পলেট করা যায় না বাবা?
- সরি। সমুদ্রের টেম্পলেটই আলাদা। বৌদ্ধদের দেখেছিস কখনও সমুদ্রের ধারে মঠ অপারেট করতে?
- পয়েন্ট। ধুস। যত দোষ ফিজিক্সের।
- শিলিগুড়ির টিকিট পাওয়া ইম্পসিবল এখন।
- বাস আছে তো। পেয়ে যাবো।
- ফিজিক্সের বাঁশ ইজ ফোর্সিং আস টু শিলিগুড়ির বাস।
- বাবা। পুরীর টিকিট হোটেল বুকিং ক্যান্সেল করতে অনেকনেক খরচা। মা থাকলে অ্যালাউ করত না।
- শিওর?
- শিওর।
- ভদ্রলোকের এক কথা তো। সেটাই ভাবছিলাম।
- ছোটবেলায় মনে আছে বাবা? আমি আর তুমি মিলে পুরীর সমুদ্রের ধারে বালির পাহাড় বানাতাম? মা বিরক্ত হত আমাদের জামাকাপড় বালিতে একাকার হচ্ছে বলে?
- হ্যাঁ। সে'টা ছোটবেলাই ছিল বটে। বেশ। পুরী। বাট ফর দ্য সেক অফ কন্টেম্পলেশন, নো মালাইকারি।
- ডিল।

No comments:

অনুরাগের লুডো

অনুরাগবাবু আমার অত্যন্ত প্রিয়৷ তার মূলে রয়েছে "বরফি"। লোকমুখে ও বিভিন্ন রিভিউয়ের মাধ্যমে জেনেছি যে বরফিতে ভুলভ্রান্তি ...