Friday, January 16, 2015

দুই ভাগ

"হাওড়া ব্রিজের চুড়োয় উঠুন নীচে তাকান, ঊর্ধ্বে চান - দুটোই মাত্র সম্প্রদায় নির্বোধ আর বুদ্ধিমান।" -শঙ্খ ঘোষ


পৃথিবীতে মানুষকে দুই ভাবে ভাগ করা যায়।

এক, যাদের পকেটে কলম রয়ে যায় আর কলমের ঢাকনাটা হারিয়ে যায়। দুই। যাদের কাছে কলমের ঢাকনারা রয়ে যায় আর কলমটা হারিয়ে যায়।

এক, যারা হঠাৎ বৃষ্টি ভালবাসেন আর দুই, যারা হঠাৎ বৃষ্টিকে ভালো না বাসার ভান করেন।

এক, যারা অঙ্কে ভালো আর দুই, যাদের অঙ্ককে ভালো করে চিনিয়ে দেওয়া হয়নি, স্রেফ শেখানো হয়েছে।

এক, যারা রেগে আগুন হয় তোলপাড় করে ফেলেন আর দুই, যারা রাগ এনেভেলেপে পুরে পুরনো বইয়ের ফাঁকে রেখে গা এলিয়ে বসেন।

এক, যারা কবিতা বোঝেন আর দুই যারা জানেন যে কবিতা কেউই বোঝে না।

এক, যারা গল্প বলতে পারেন আর দুই, যার গাল হাত রেখে হাঁ করে গল্প গিলে যেতে পারেন।

এক, যারা টেস্ট ম্যাচ ভালোবাসেন আর দুই, যারা টেস্ট ম্যাচ দেখেন না।

এক, যারা মাঝে মাঝেই ঝপাৎ করে শিবরাম পড়ে ফেলেন আর দুই, যারা কুঁচকানো ভুরুর চালুনিতে নাগাড়ে ইনফরমেশন ফিল্টার করে চলেছেন।

এক, যারা “ধুর কাঁচকলা”য় আটকে আছেন আর দুই, যারা “হোয়াট দা ফাকে”র শৃঙ্গজয় করেছেন।

এক, যারা টমেটো খেজুরের চাটনি পাঁপড় দিয়ে খেতে ভালোবাসেন আর দুই, যারা সে চাটনি শুধু খান।

এক, যারা দুর্দান্ত প্রেম করতে পারেন আর দুই, যাদের ভাগ্যে প্রেমিক/প্রেমিকা রয়েছে।

এক, যারা ভুল স্বীকার করে ফেলেন চটপট আর দুই, যারা ভোটে জিতবার দম রাখেন।

এক, যারা “এই পথ যদি না শেষ হয়” বললে রোম্যান্স ভাবেন আর দুই, যারা সে গান শুনলেই লিপস্টিকে ব্যাটাচ্ছেলে ভেবে নিজেদের গা-পিত্তি জ্বালিয়ে ফেলেন।  

এক, যারা ভেবে চলেন রবীন্দ্রনাথ শেষ বয়স পর্যন্ত অমন অবলীলায় লিখে যেতেন কী ভাবে, আর দুই, যারা খুঁজে বেড়ান যে দাড়ি পাকাতে শুরু করার পর থেকে তার দন্ত-বিকশিত-হ্যা-হ্যা মার্কা ছবি আদৌ ক’টা আছে।

এক যারা শিঙ্গাড়ার আলু বেশি পছন্দ করেন আর দুই, যারা সিঙ্গারার নিমকি-সম চামড়া বেশি পছন্দ করেন। 

এক, যারা কাজের মধ্যে থাকতে ভালোবাসেন আর দুই, যারা এই লেখাটা পড়ে শেষ করলেন।

    

3 comments:

malabika said...

তালিকাটা 'হেব্বি'
শঙ্খ ঘোষকে উপহার দেবার জন্য ধন্যবাদ।

Anonymous said...

Twitter এর সুএে আপনার লেখার সাথে পরিচিত হলাম আজ। ভাল লাগলো।

disha ray said...

Woww..loved it