Thursday, September 29, 2011

Boss কহিলেন



[এমন এক BOSS কে চিনি, যাকে তার দ্বারা Boss’ইতো জনগণ অসুর কুমার বলে ভক্তি-শ্রদ্ধা করে থাকেনসেই অসুর-কুমারএর বস-মুখি চিন্তা-ভাবনার এক খাবলা চুরি করে নীচে টুকে দিলামBoss-দু:খে যারা মরমে মরে আছেন, তাদের হাড়ে-হাড়ে এই ভাবনা-গুলোর পাল্স অনুভূত হবে, এ আমার বিশ্বাস ]
“এই যে পাহাড়ের মত চেয়ারটায় ওপর চড়ে বসে আছি, সেখান থেকে নিচের দিকে থাকলেই মাথাটা কেমন বন-বন করে ঘুরতে থাকে; কত্তসব ছুটকোছটকা অপদার্থের দল পোকা-মাকড়ের মত ঘোরাঘুরি করছে। আমি যে এতো খাটা-খাটনি করে এদ্দুর উঠে এলাম, সেই হার্ড-ওয়ার্কিং স্পিরিটের ভগ্নাংশও যদি এই গাধাগুলোর মজ্জায় থাকত তাহলে এর উর্বর মানুষ হয়ে উঠতো। কাজ-কর্মের বালাই নেই, গোটাদিন শুধু চাই-চাই-চাই’; ছুটি চাই, বোনাস চাই, লোন চাই,টি-এ/ডি-এ চাই! আরে? আমার অধস্তন বলে কি আমার স্তন পিষে নেবে নাকি
? সব ব্যাট নিমক-হারাম! আমি নিশ্চিত সব বুড়োগুলো কম্পিউটার খুললেই সলিট্যায়ার খেলে আর ছোকরাগুলো কম্পিউটারে বসলেই ফেসবুক খোলে।
রাবিশ, জানোয়ারদের দলএসব আধুনিক ওয়ার্ক-কালচারবাজির চল না হলে, সব ব্যাটাকে আড়ং-ধোলাই দিয়ে শায়েস্তা করতাম

শালা জুনিয়রগুলো অফিস ডিসিপ্লিনের তোয়াক্কা করে না? আমি বস, আমি বেলা এগারোটায় অফিস এসে চারটেয় কাটলে তার যুক্তি আছে, কিন্তু তোদের ব্যাটা সাহস কি করে হয় সাড়ে নটার পড়ে অফিসে আসার? আবার অজুহাতের ডিক্সানারী সব ব্যাটা ; ‘স্যার যা ট্র্যাফিক- তবে কি হেলি-কপটার দেবে নাকি কোম্পানি বাবুদের অফিসে আসার জন্যে? রিডীকুলাস।
আর আমি নিশ্চিত, ছুটি চাইতে গেলেই সবগুলোর পেট থেকে ভূর-ভূর করে মিথ্যে বেরিয়ে আসে, ‘ছোট মেয়েটার জ্বর স্যার / মা ক্রিটিক্যাল স্যার / ছেলের স্কুলে ডেকেছে স্যার’: সব ব্যাটা মিথ্যুক, বেল্লিক, হারামি কা বাচ্চা!
কোনও কাজ করতে বলেছি কি বাবুদের মুখ গোমড়া। কাজ করবার আগে না করবার কারণ খোঁজেফাঁকিবাজি নিয়ে রীতিমত পড়াশোনা করা রাস্কেলগুলো আমার হাড় জ্বালাতে এসেছেএকটা কাজ সময়মত হওয়ার উপায় নেইকাজ করতাম আমরা জোয়ান বয়েসে, মুখে রক্ত তুলে কাজ করে এসেছি; সে সব ছিল সময়আর এখন? বজ্জাতগুলো কে দেখলে গা-পিত্তি জ্বলে যায়
এরা একেকজন যে শুধু অকম্ম্যের ধাড়ি তাই নয়, দস্তুরমত ষড়যন্ত্র চালায় আমার বিরুদ্ধে, আমি নিশ্চিত আমার আড়ালে এরা সর্বক্ষণ আমায় গাল-মন্দ করে, তবেই না এন্তার বিষম খেতে হয় আমায়। এদের চারটে মাথা এক জায়গায় এলেই আমার ভয় লাগে; নিশ্চই আমার বিরুদ্ধে কন্স্পিরেসি করছে? ইউনিয়নগিরি করছে না তো? শুয়োরের দল!
নেহাত আমার মত নরম,ভালো-মানুষের হাতে পড়েছিল শালা-গুলো, তাই উতরে গ্যালো।এই যদি কোনও বাতিকগ্রস্ত বসএর হাতে পড়তো মালগুলো, তবে বুঝতে অকাল-কুষ্মাণ্ড গুলো যে কত ধানে কত চাল!”

ধপাস

সাঁইসাঁই। সাঁইসাঁই। সাঁইসাঁই। পড়ছি তো পড়ছিই। পড়ছি তো পড়ছিই। পড়ছি তো পড়ছিই। পড়ছি তো পড়ছিই। বহুক্ষণ পর আমার পড়া একটা প্রবল 'ধপ...