Sunday, March 25, 2018

কড়াই ও মুগুর

- আসুন। আসুন মিস্টার।
- ধুর ছাই। ম্যানেজারবাবু, হপ্তায় একবার করে আপনি অফিসে ডেকে পাঠান। অথচ ফেরত পাঠানোর কোনো কংক্রিট প্ল্যান আজও শুনলাম না।
- মরলে জন্মাতে হবে, চিরভূত কে কোথা কবে?
- ধ্যাত্তেরি। সেই কবে থেকে এক কথা। মরেছি বছর দশেক তো হল। আর কদ্দিন?
- দাঁড়ান। আপনার আত্মার জন্য সুইটেবল প্রোফাইল না পেলে বাজারে ছাড়ি কী করে বলুন তো। এই যেমন  গেল বার, পকেটমার আত্মা নেমে হল দারোগা। শেষে সে কয়েদীদের পকেট মারার চেষ্টা শুরু করলে, ভেবেছেন কাণ্ডটা?
- পৃথিবীতে তো টপাটপ মানুষ মরছে। হাজার রকমের প্রোফাইল,  টুয়েন্টি ফোর সেভেন নতুন ভ্যাকেন্সি তৈরি হচ্ছে। দশ বছরে আমার জন্য সুটেবল কিছু পেলেন না?
- ও মা! অত সহজ নাকি। ক্রস-ফাংশনাল ম্যাচিং আছে। ওয়েটিং লাইন আছে। দুম করে কিছু করে দিলেই হল? আরে মশাই গরম তেলের কড়াইয়ের কম্ফর্টে শুয়ে অনেকে বাতেলা ঝাড়তে পারে। কিন্তু আমার কাজের প্রেশার যদি বুঝতেন।
- দিনে তিন ঘণ্টা করে আমায় গরম তেলে ডীপ ফ্রাই করা হয়, সে'টা মামুলি ব্যাপার নাকি?
- অত ইম্পেশেন্ট হবেন না মিস্টার। ভূত হয়ে তেলের কড়াইতে যত চুবনি খাবেন, জন্মের পর আপনার হিউম্যান স্কিন তত গ্লো করবে, মিলিয়ে নেবেন।
- রিয়েলি?
- আলবাত।
- যা হোক, ম্যানেজারবাবু। একটু দেখুন না, প্লীজ। আর ভাল্লাগছে না।
- হবে হবে।
- একটু যদি এক্সপেডাইট করা যায়।
- আমার হাত পা বাঁধা।
- প্লীজ। এ'খানে ঘুষ চলে?
- কোনো রিসোর্স নেই। ঘুষ নিয়ে হবে কী?
- প্লীজ। কড়াইয়ে বড্ড বোর হচ্ছি। আর সহ্য হচ্ছে না।
- মুগুরপেটায় শিফট করিয়ে দেব? ইনস্টেড অফ কড়াই?
- সেই বাহান্ন তিপ্পান্ন কেস। প্লীজ ম্যানেজারবাবু। সহ্য হচ্ছে না আর। এ'বার জন্মাতে দিন।
- আরে হবে না। একটা এক্সেপশনাল রুট আছে বটে, তবে সে'টা পারবেন না আপনি।
- পারব না?
- ইম্পসিবল।
- খুব পারব। আমার খুব জেদ। প্লাস মনের জোর।
- হবে না মিস্টার।
- ম্যানেজারদাদা। মুখ ফস্কে একটা উপায়ের কথা বলে যখন ফেলেছেন তখন আর আপনার ছাড়ান নেই। পথ বাতলে দিন স্যার। ওই কড়াই ভর্তি গরম তেলে গলা ডুবিয়ে যতই জাকুজি-মস্তি ভাবি, বড় জ্বালা। স্যার, প্লীজ।
- আপনার জেদ যে আছে তা অনস্বীকার্য। মনের জোরও অসীম। কিন্তু এই দু'টো কোয়ালিটির জন্যেই চিন্তা হচ্ছে। রোলটা আপনি ম্যানেজ করতে পারবেন কি না...।
- আরে ধ্যের রে বাবা, বলছি তো। কড়াই মুগুরের দেশ থেকে বেরোতে চাই। কুকুর হয়ে জন্মালেও আপত্তি নেই।
- কুকুর? না, সে চান্স নেই। পশু মানে তো বিজনেস ক্লাস। আপনি মানুষের ভূত, আপনার কপালে স্লিপারের সাইড আপার।
- রোলটা কীসের?
- সরকারের চাটুকার খবরের কাগজের সম্পাদক। সরকার অমুককে ভালো বললে আপনি লিখবেন অমুক হল বিবেকানন্দ। সরকার তমুককে মন্দ বললে আপনি তমুককে বলবেন শুয়োরের বাচ্চা। নেতা যাই বলুক তা বেদ। অপোজিশন যাই বলুক তা বেদো। পারবেন মিস্টার?
- কড়াইয়ের তুলনায় মুগুরপিটুনিটা মন্দ নয় বলছেন ম্যানেজারবাবু? অন্তত বছর দশেক আরও চালিয়ে নেওয়া যাবে তো?

No comments:

অনুরাগের লুডো

অনুরাগবাবু আমার অত্যন্ত প্রিয়৷ তার মূলে রয়েছে "বরফি"। লোকমুখে ও বিভিন্ন রিভিউয়ের মাধ্যমে জেনেছি যে বরফিতে ভুলভ্রান্তি ...