Wednesday, January 31, 2018

টোটাল ইন্টারনাল রিফ্লেকশন


- হীরা চমকায় কেন জানিস?
- টোটাল ইন্টারনাল রিফ্লেকশন। অফ কোর্স।
- ডেমো দেখাতে পারবি?
- হীরে নিয়ে ঘুরছ নাকি মামা?
- নয়তো ডেমো দেখাতে বলছি কী করে!
- রিয়েলি? 
- এই দ্যাখ। 
- ধুস। শিঙাড়া। এটা কি তোমার সেই স্পেল অফ কবি ভাব? পুরী বিচ ফিট?
- পাকামি করিস না। কোশ্চেনটায় ডেপথ রেখেছি।
- বেশ তুমিই ডেমোটা দেখাও।
- এ শিঙাড়া যে সে শিঙাড়া নয় বাবু। ডেসিমাল সাইজের ব্রিলিয়ান্স। তা বলে প্যাকেট করা হলদিরামি ভাঁওতা নয়। ভিতরে জেনুইন হলুদ মাখো মাখো আলুর পুর। জেম।
- কথায় কাজ কী? ডেমোয় এসো। টোটাল ইন্টারনাল রিফ্লেকশন। ডায়মন্ড। থ্রু শিঙাড়া।
- ওকে। এই দ্যাখ। পুরীর বে বেঙ্গলের ছাদের নরম আলোর ফোকাসে শিঙাড়াটাকে প্লেস করলাম। ওকে?
- ওকে।
- সে আলো অপ্টিক্যালি ডেন্স মিডিয়াম থেকে রেয়ারার মিডিয়ামে চলা ফেরা করে চকমকি জেনারেট করছে সে'টা তো স্পষ্ট দেখতেই পাচ্ছিস।
- ধ্যার। 
- চকমক দেখতে পাচ্ছিস না?
- ধ্যার ধ্যার।
- ওরে, এ কি যে সে হীরে? দুম করে চমকালেই হল? ফাটা কেষ্ট কি দড়াম করে কেলিয়ে দিয়েই খালাস হয়? সে মারে এখানে আর লাশ ফেলে শ্মশানে। তেমনই, এ হীরে চমকায় এখানে কিন্তু ঝলক পড়ে গিয়ে বুকের ভিতরে। ইনসাইড ইওর সোল।
- শিঙাড়াটা কি খাবে না মামা?

No comments:

দ্য গ্র‍্যান্ড তুকতাক

- কী চাই? - হুঁ? - কী চাই? চাকরীতে টপাটপ প্রমোশন বাগানোর মাদুলি? শুগার কন্ট্রোলে রাখার তাবিজ? হাড়বজ্জাত মানুষজনের বদনজর এড়িয়ে চল...