Tuesday, October 4, 2016

টেস্ট

-   কী? কিছু বলবেন ঝুনঝুনওলাজি?

-   বোর্ড প্রেসিডেন্ট সাহাব! ম্যায় ক্রিকেট অ্যাডমিনিস্ট্রেটর বাদ মে। বিজনেসম্যান ফার্স্ট। বিজনেস প্রপোজাল ছাড়া আমাকে আপনি কহি পে দেখতে পারবেন না।

-   বসুন। কফি?

-   শরবত হোবে? স্যুইট লাইম জ্যুস? উইথ সোডা।

-   বেয়ারা! সাব কে লিয়ে স্যুইট লাইম উইথ সোডা লাও। এবার বলুন ঝুনঝুনওলাজী। আপনার প্রপোজালটা কী।

-   বলবো। জরুর বলবো! লেকিন উসসে পেহলে, আমার কনসার্নটা শুনে লিন।

-   কনসার্ন? ইন্ডিয়ান ক্রিকেট নিয়ে?

-   সির্ফ ইন্ডিয়ান কেন? ওয়ার্ল্ড ক্রিকেট কে লিয়ে আমার চিন্তা মিস্টার প্রেসিডেন্ট।

-   রিয়েলি। আমি জানতাম আপনি অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ দিকটা সামাল দিতেই বোর্ডে আছেন। রেভিনিউ ম্যানেজমেন্ট আপনার স্ট্রেন্থ। ক্রিকেট নিয়েও আপনার চিন্তা আছে, সে’টা জেনে ভালো লাগল ঝুনঝুনওলাজী।

-   ই এক মুসিব্বত আপলোগোকো লেকে মিস্টার ক্রিকেট প্রেসিডেন্ট।

-   আপলোগ বলতে কাদের দিকে আঙুল তুলছেন মিস্টার ঝুনঝুনওলা?

-   ক্রিকেট এলিট্‌স। ইন্ডিয়ামে কেউ ফুটবল খেলা কোরে না। কিঁউ? কিঁউ কি রেভেনিউ কুছু নেই। হ্যায় কি নহি?

-   মেনে নিলাম। কিন্তু ফুটবল নিয়ে তেমন দুশ্চিন্তা ভারতে বা দেশের বাইরে দেখা যাচ্ছে না মিস্টার ঝুনঝুনওলা।

-   ল্যাক অফ অ্যাম্বিশন! বিজনেস কা সবসে বড়া ক্যান্সার!

-   উই আর টকিং অ্যাবাউট ক্রিকেট। মিস্টার ঝুনঝুনওলা।

-   বিজনেস নিকাল লিজিয়ে অউর আপকা ক্রিকেট অউর কাবাড্ডি মে কোই ফর্ক নহি বঁচেগা।

-   আপনি বলতে কী চাইছেন মিস্টার ঝুনঝুনওলা? আইসিসির রেভিনিউ গত পাঁচ বছরে একটানা বেড়ে চলেছে। বিসিসিআইও পিছিয়ে নেই...।

-   ডেটা দেখেন। গুড হ্যাবিট। লেকিন ফুল পিকচার দেখেন মিস্টার বোর্ড প্রেসিডেন্ট।

-   ফুল পিকচার?

-   নাইন্টিন সেভেন্টিসয়ে ক্রিকেট রেভিনিউ অন অ্যান অ্যাভারেজ গ্রো করল বাই ফিফটিন পারসেন্ট পার ইয়ার। নাইন্টিন এইটিজে বাই টুয়েন্টি ট্যু পারসেন্ট। নাইন্টিন নাইন্টিজে বাই ফর্টি থ্রি পারসেন্ট। ইটা টু থাউস্যান্ড অ্যান্ড ফাইভ। এই ডিকেডের অ্যাভারেজ রেভেনিউ গ্রোথ কিতনা, খবর রাখেন?

-   কত?

-   সেভেন পার্সেন্ট!

-   সেভেন?

-   সেভেন পারসেন্ট অনলি! এগেইন্সট ফরটি থ্রি পার্সেন্ট অফ লাস্ট ডিকেড। আমি লিখিয়ে দিব, দশ সাল কে অন্দর গ্রোথ নেগেটিভ হোবে।

-   ওহ।

-   কী মিস্টার প্রেসিডেন্ট। বোলেন কুছু।

-   আপনার কোনও সাজেশন আছে?

-   ওয়ান ডে ক্রিকেট ইন্ট্রোডিউস হলো কেনো? বোলেন কেনো?

-   অবভিয়াসলি, সাবেক টিট্যুয়েন্টি ক্রিকেটের আকর্ষণ কমতে শুরু করেছিল। মাঠে ভিড় কম হচ্ছিল। রেভিনিউ কমছিল। ইন ফ্যাক্ট দ্য গ্রেটেস্ট হিটার, ওই সুপার রিভার্স স্যুইপ মারনেওয়লা গাভাস্কার নিজে প্রপোজ করেছিলেন যে ফর্মাট কুড়ি ওভারের বদলে পঞ্চাশ করলে খেলার আকর্ষণ বাড়বে,  রেভিনিউর স্কোপ বাড়বে। সে’টা একটা বৈপ্লবিক সিদ্ধান্ত ছিল। বাট অল ইজ হ্যাপি দ্যাট ইট পেড অফ। নয়তো ব্র্যাডম্যানের খেলাটা খোলনলচে পালটে কুড়ি ওভারের ইনিংসের বদলে পঞ্চাশ। ভাবা যায়?

-   সোচেন। রিভোলিউশন থা উয়ো।

-   কিন্তু মিস্টার ঝুনঝুনওলা, আপনার সাজেশন কী? নতুন কোন ফর্ম্যাট সাজেস্ট করছেন? টি ট্যুয়েন্টি বন্ধ করতে বলছেন?

-   ক্রিকেট এলিটদের কী হোবে? টি ট্যুয়েন্টি বন্ধ্‌ হোলে এলিটদের কী হোবে? দু’শো সাল কা খেল। গ্রেসবাবু দেড়শো স্ট্রাইক রেটে ব্যাটিং করতেন। অউর উয়ো ব্র্যাডম্যানজী তো ঢাইশো কে স্ট্রাইক মে ব্যাট করতেন। ই’সব বাদ দিলে আপনাদের তো নিঁদ ভেগে যাবে! টি ট্যুয়েন্টি হ্যাস টু স্টে। লেকিন ওয়ান ডে ক্রিকেট বোরিং হচ্ছে মিস্টার প্রেসিডেন্ট। রিসেন্ট রেভেনিউ ডিপ জিয়াদা সে জিয়াদা উধর হি হ্যায়।

-   আপনার সাজেশনটা শুনিই না। নতুন ফর্ম্যাট? একশো ওভারের ইনিংস? তা'তে এক দিনে শেষ হবে খেলা?

-   রিভোলুশন। ইনোভেশন! বুঝেন? পঁচাশ ওভার কো শ’ওভার বনানা ইনোভেশন নহি হ্যায়। থিঙ্ক আউট অফ বক্স। ফর আউট অফ ওয়ার্ল্ড রেজাল্টস।

-   তাহলে?

-   বচপেন মে ম্যায় ভি ক্রিকেট খেলা হু! লেকিন লিমিটেড ওভার নহি। আন লিমিটেড। যব তক আউট নহি, তব তক ব্যাটিং।

-   এখানেও তাই চাইছেন নাকি?

-   আমি কনসাল্ট্যান্টদের সাথে বাত করিয়ে লিয়েছি। সাউথ আফ্রিকা, অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ডের আদমিলোগ সে ভি বাতচিত হুয়া হ্যায়। ব্যাকডোর বাতচিত।

-   ফর্মাটটা কী?

-   পাঁচ দিন কা ক্রিকেট!

-   কী?

-   পাঁচ দিন কা ক্রিকেট!

-   আপনি পাগল হলেন নাকি ঝুনঝুনওলাজী? বেয়ারা, সাহাব কে লিয়ে আউর এক গ্লাস নিম্বু পানি লাও।

-   মজাক করিয়ে নিন মিস্টার প্রেসিডেন্ট। ফিফটি ওভার ম্যাচ কো ভি মক কিয়া থা এলিট লোগো নে।

-   মিস্টার ঝুনঝুনওলা, শুনুন! ছোটবেলায় আমাদের গ্রামে শীতকালে সার্কাস এসে তাঁবু ফেলত। টানা পাঁচ দিন থাকত, দিনে তিনটে করে শো। ক্রিকেটকেও তেমন একটা কিছু বানাতে চাইছেন কি?

-   ইধর ভি। পাঁচ দিন। হর দিন তিন শো! মর্নিং সেশন! উসকে বাত লাঞ্চ। আফটারনুন সেশন। উসকে বাদ টী। অউর ফির পোস্ট টি সেশন! দিন মে নব্বই ওভার। জবরদস্ত। পুরা ম্যাচ মে সাড়ে চারশো ওভার। চারশো প্লাস অ্যাড ব্রেক। রেভেনিউ ভাবেন। ই সব ছাড়াও লাঞ্চ ব্রেক, টী ব্রেক! অ্যাড হি অ্যাড!

-   টী? ক্রিকেটে টী ব্রেক? ক্রিকেট কি রাস্তার চায়ের দোকান নাকি?

-   বোর্ড প্রেসিডেন্ট মাফিক বাত কোরেন। রেভেনিউ কা খেল হ্যায় সব কুছ প্রেসিডেন্ট।

-   পাঁচ দিন ধরে দু’টো টীম ব্যাট করবে?

-   টু ইনিংস! টিম এ এক ইনিংস খেলেগা। উসকে বাদ টিম বি। ফির টিম এ ব্যাটিং কে লিয়ে উতরেগা। জিসকা রান জিয়াদা, উয়ো হি সিকন্দর।

-   লোহার ব্যবসা করে আপনার মাথাটা গেছে।

-   আইডিয়া শিওর শট। অস্ট্রেলিয়া বোর্ড কা ম্যাথুজ সাহাব ইজ ইন্ট্রিগড। নেক্সট ডোমেস্টিক সিজনে আইডিয়া পেশ হোবে ওখানে।

-   একটা ম্যাচ চলবে পাঁচ দিন ধরে? যদি একটা টীম কে অন্য টিম পাঁচদিনেও আউট না করতে পারে?

- ইনিংস ডিক্লেয়ার করে দিবে। নিউ রুল।

- ডিক্লেয়ার না করলে?

-   নো রেজাল্ট। ড্র! চেস্‌ মাফিক।

-   টাই না। ড্র?

-   ড্র!

-   ক্রিকেটে নো রেজাল্ট? তাও পাঁচদিন পরে?

-   পাবলিক চুম্মা লিবে আইসিসির। ফর দিস আইডিয়া। লোগ পীস লাভিং হ্যায় আজকাল। গেম কম্পিটিটিভ ভি হোবে, অউর নো রেজাল্ট ভি হোতে পারে। মস্ত হ্যায়।

-   আমার মাথা ঘুরছে। ম্যাথুজ সাহেব বলেছেন অস্ট্রেলিয়ায় ওরা এই আইডিয়া ফ্লোট করবে?

-   ইমেল আছে। ফরওয়ার্ড কোরে দিবো। গ্ল্যামার সোচেন। ইসকা ট্যাগ লাইন ভি হম লোগ সোচিয়ে লিয়েছি।

-   শুনি!

-   টেস্ট ম্যাচ ক্রিকেট। রিয়েল টেস্ট অফ ক্যারেক্টার, নট চাইল্ড্‌স প্লে।

-   টেস্ট ম্যাচ?

-   জী! জাস্ট ফাইভ ডেজ ক্রিকেট বোলনে সে কান মে খটক্তা হ্যায়। টেস্ট অফ ক্যারেক্টার বোলেন। গ্ল্যাডিয়েটর ফাইট যেয়সা ফীল দিজিয়ে। তব বনেগি বাত।

-   লোকে সে ম্যাচ দেখবে?

-   উ বঙ্গালি লোগ কেয়া বোলতা হ্যায়...দেখবে মানে? গোগ্রাস মে গিলবে। হে হে হে! আর অউর ভি আইডিয়াস আছে।

-   যেমন?

-   জার্সি ওয়ার্সি নহি চলেগা।

-   ন্যুড ক্রিকেট?

-   আরে নহি সাহাব। অল ইন হোয়াইটস!

-   দু’টো দলই?

-   জী! ইকুয়ালিটি ভি হোবে, ডিফারেন্ট ভি হোবে। আর রেড বল। ইয়ে আইডিয়া রেড অ্যান্ড হোয়াইট খৈনি কোম্পানি স্পন্সর করনে কে লিয়ে রেডি হ্যায়। মেরে সে বাত হুয়া হ্যায়। আইডিয়া নয়া লেকিন উয়ো লোগ পয়সা লাগানে কে লিয়ে তইয়ার। লেকিন কন্ডিশন ওই। অল ইন হোয়াইট ড্রেস অ্যান্ড রেড বল।

-   লাল চামড়ার বল?

-   উকে রেড চেরি বোলেন। অউর হা, চিয়ারলীডার লেড়কি লোগ আউট।

-   মানে? ক্রিকেট ম্যাচ হবে কিন্তু চিয়ারলীডার থাকবে না? সে’টাকে ক্রিকেট বলে মনে হবে লোকের?

-   ই সব ইলিটিস্ট ফিলিং নিয়ে ধন্দা কী করে করবেন মিস্টার প্রেসিডেন্ট? কস্ট কাটিং কা জমানা!

-   আমার মাথা ঘুরছে! কত হাজার হাজার রান হবে পাঁচ দিনে!

-   হাজার হাজার হোবে না। রুল কুছু চেঞ্জ করতে হবে, টু ফেভার দ্য বোলার্স। ব্যাটসম্যান লোগো কা স্ট্রাইক রেট ঘট যায়েগা। অ্যাভারেজ দেড়শো সে পঁচাশ তক আ যায়েগা!

-   পঞ্চাশ স্ট্রাইক রেটে ক্রিকেটে ব্যাটিং হবে?

-   মোস্টলি স্ট্রেট ব্যাটে খেলেগা ইয়ে লোগ। নহি তো পাঁচ দিন টিকেগা কেয়েসে? কুছ রুল্‌স চাহিয়ে ফেভারিং দ্য বোলার্স। সেম পিচ ফর ফাইভ ডেস। আনলিমিটেড বাউন্সারস।

-   ব্যাটসম্যানদের খতম করে এ’টাকে ক্রিকেট বলতে চাইছেন ঝুনঝুনওলাজী? স্ট্রেট ব্যাটে ব্যাটিং? বিলো ফিফটি স্ট্রাইক রেট? এ’টা ক্রিকেট কে খুন করা যে। কেউ স্কুপ হেলিকপ্টার মারতে চাইবে? কেউ প্রথম বলে স্টেপ আউট করবে?

-   ফির চালু এলিটবাজি!

-   এমসিসির শুরু হয়েছিল টি ট্যুয়েন্টিতে মিস্টার ঝুনঝুনওলা। ব্যানারম্যান আগুন ঝরিয়ে একুশ বলে পঞ্চাশ করেছিলেন। সে খেলাকে আপনারা কোন অন্ধকারে ঠেলতে চাইছেন বলুন তো? ব্যবসাটাই সব হতে পারে না।

-   ব্যবসা না করলে আপকা ক্রিকেট খতম হো যায়েগা প্রেসিডেন্ট। অউর ক্রিকেট খতম হলে আমাদের বিজনেস প্রমোশন হবে কী করে? ঝুনঝুনওলা টি এম টি বার, সদা কে লিয়ে। আমরা লাঞ্চ শো স্পন্সর করব ফার্স্ট টেস্ট ম্যাচে।

-   কিন্তু...।

-   লেকিন-ওয়েকিন ছোড়েন! ফিউচার অফ ক্রিকেট ইজ হিয়ার। রিয়েল টেস্ট অফ ক্যারেক্টারস। ব্যাটসম্যানের লেজ কাটিয়ে নিন। ফির দেখেন মস্তি। হে হে হে। ফর ফাইভ ডেস। ইন ফিউ ইয়ার্স রঞ্জি টি ট্যুয়েন্টি লীগ বন্ধ করিয়ে দিবেন আপনি নিজে, হামি লিখিয়ে দিবো।তব আই টি পি এল শুরু হোগা বহুত  জল্দ। ইন্ডিয়ান টেস্ট প্রিমিয়ার ল্যিগ।

-   বেয়ারা! আমার জন্য দু’গ্লাস জল দিয়ে যাও ভাই।

No comments: