Saturday, March 5, 2016

প্রফেসর দত্ত আর সময় যন্ত্র



- প্রফেসর দত্ত। আপনি বরং আজ আসুন।
- আসব?
- হ্যাঁ। আসুন। আমার বিস্তর কাজ রয়েছে।
- বলছিলাম, আমার পেটেন্টটা?
- এই কার্ডবোর্ডের বাক্স হচ্ছে আপনার তৈরি টাইম মেশিন। তাই তো?
- আজ্ঞে। তবে শুধু সময়ে পিছিয়ে যাওয়া যায়। ভবিষ্যতে যাওয়া যায় না।
- আচ্ছা বেশ। এই কার্ডবোর্ডের বাক্সে চড়ে ইতিহাসে চলে যাওয়া যায়। তাই তো?
- একদম।
- এটা আপনি আমায় বিশ্বাস করতে বলছেন?
- ফুল প্রুফ। থিওরির সরবতে এক ফোঁটাও চোনা নেই।
- প্রফেসর। দেখুন। এ'টা কার্ডবোর্ডের বাক্স। মানে আপনার সময় পিছিয়ে দেওয়া টাইম মেশিন একটা দৈত্যাকার বাক্স বই আর কিছু নয়। তাতে কোন সার্কিট, পাওয়ার সাপ্লাই কিস্যু নেই।
- সময় পিছিয়ে যেতে সে'সবের দরকার নেই।
- দরকার নেই?
- নেই।
- তবে?
- এই বাক্সের ভিতর রাখা আছে একটা চেয়ার।
- জাদু চেয়ার?
- না। জাদু কেন? এ তো সায়েন্স। নর্মাল প্লাস্টিকের চেয়ার। নীলকমলের।
- তাতে করে ইতিহাসে?
- সোজা। তবে শুধু চেয়ার নয়। আরও আছে।
- আর কী?
- চেয়ারের চারপাশে থাক থাক খবরের কাগজ।
- খবরের কাগজ?
- আনন্দবাজার! আপনাকে শুধু এই বাক্সের ভিতর ঢুকে চেয়ারে বসতে হবে। আর পাশে ছড়িয়ে রাখা আনন্দবাজার দেখেও পড়বেন না। ব্যস। কেল্লা ফতে।
- মানে?
- ওই। ফুলপ্রুফ থিওরি। আপনি আনন্দবাজার বেষ্টিত হয়ে বসে থাকবেন অথচ আনন্দবাজার পড়বেন না। কিছুতেই পড়বেন না আর ক্রমশ পিছিয়ে যাবেন, পিছিয়ে যাবেন, পিছিয়ে যাবেন...।
- আগামী ঊনত্রিশে আসুন। দু'টো স্টাম্প সাইজ ফটো নিয়ে আসবেন। কেমন?

2 comments:

Anonymous said...

AARE MOSHAI! ANANDA PUROSKAR PABAR BABOSHTHYA KORE FAILLEN TO. SADHU SADHU.

suprakash said...

This is awesome

ধপাস

সাঁইসাঁই। সাঁইসাঁই। সাঁইসাঁই। পড়ছি তো পড়ছিই। পড়ছি তো পড়ছিই। পড়ছি তো পড়ছিই। পড়ছি তো পড়ছিই। বহুক্ষণ পর আমার পড়া একটা প্রবল 'ধপ...