Saturday, February 20, 2016

সঞ্জীবে সঞ্জীবে

এই যে সঞ্জীব-ভক্ত হয়েও আই লাভ সঞ্জীব লেখা টিশার্ট পরছি না, তাতে প্রমাণ হচ্ছে যে আমি সঞ্জীব ভক্ত নেই।

- ঠিক। যেমন আমিও সঞ্জীব ভক্ত অথচ আমি শুধু সঞ্জীব পড়েই যাচ্ছি, টিশার্ট পরছি না।

- কাজেই তুমিও ভক্ত নয়।

- তবে ওই অনিল লালওয়ানি কিন্তু সঞ্জীব ভক্ত। ও সঞ্জীব ইজ মাই লাইফ লেখা টিশার্ট পরছে।

- যদিও অনিলবাবু বাঙলা পড়তে পারেন না।

- তাতে কী? উনি সঞ্জীব পড়তে না পারলেও পরতে পারেন। ভিজিবলি সো।

- করেক্ট। অতএব তিনি ভক্ত।

- এই যে আমরা সে টিশার্ট পরছি না তার কারণ বড্ড গরম, খালি গায়ে কেতা নেই কিন্তু আরাম আছে।

- ঠিক। তবে সেটা আমাদের জঘন্য নির্লজ্জতা।  গরম আগে না সঞ্জীব টিশার্ট?

- ঠিক। শুধু সঞ্জীব পড়ব আর কেত মারব?

- নাহ! দ্যাট প্রুভস আদতে আমরা অ্যান্টি-সঞ্জীব।

- কারুর উচিৎ না আমাদের সঞ্জীবের বই উপহার দেওয়া।  অনিল লালওয়ানি ডিজার্ভ করেন সে'সব বই।

- যদিও উনি সঞ্জীবের বই পড়তে পারেন না।

- রাইট। কিন্তু টিশার্ট পরেন তো। টিশার্ট যার, শেল্ফে বই তার। সেই ভক্ত।

- আমাদের নাম সঞ্জীব ভক্তের লিস্ট থেকে অবিলম্বে কেটে দেওয়া উচিৎ।

- ঠিক। আমরা পড়ি। পরিনা।

- যদিও সঞ্জীব লেখেন। সেলাই করেন না।

- তবু। অনিলবাবু বলেছেন। পরলেই ভক্ত, পড়লে নয়।

- আমরা অখাদ্য। আমরা সঞ্জীব বিরোধী।

- ঠিক। আমরা সঞ্জীবকে শেষ করতে চাই। আমাদের যারা যারা সঞ্জীবের বই উপহার দিয়েছেন, তারা টাকাগুলোকে জলে দিয়েছেন।

- সঞ্জীবের বই ছাপা বন্ধ করে সঞ্জীব রকস টিশার্ট ছাপা হোক শুধু। সেটাই আদত সঞ্জীব ভক্তি।

- ঠিক। ঠিক।

No comments:

পতাকা আর চীফগেস্ট

- এই যে। দত্তবাবু। কাল সোয়া সাতটার মধ্যে আসছেন কিন্তু। পৌনে আটটায় বড়সাহেব এসে পৌঁছবেন৷ ফ্ল্যাগ হয়েস্টিং আটটায়। - ধুস। পনেরোই অগস...