Sunday, March 1, 2015

শনিবার রাতের মেহফিল


গেটিং দ্য বেস্ট আউট অফ শনিবার রাত। বংপেন নির্বাচিত সেরা দশ এলিমেন্ট  ঃ  

১। দ্য রাত অফ শনিবার। হাতের সুরাপাত্রে কফি। সঞ্জীবের মামা-সিরিজের শবাব। 

লেট দ্য মেহফিল বিগিন।

২। কফি কাপে একটু চুমুক। 

কিশোরের "উয়ো শাম আজিব থি"র সুরে একটু হিক্‌। 

মেহফিল অফ শনিবার।

৩। বিছানার বালিশ সোফায়। শাহজাদা সেলিমের পিঠ আমার ফতুয়ায় ঢেকে সে বালিশে ঢলানো হেলান। কিশোর তখন রয়েছেন "ঝুকি ঝুকি নিগাহ মে"তে। 
শনিবার রাত। 

৪। টিভি বন্ধ। বই ভাঁজ করা। অসময়ে মুড়ি চানাচুরের বাটি কফি কাপের পাশে আধ-ভরপুর। 

ইয়ে শনিবার কি রাত অভি জওয়ান হ্যায়।

৫। গান পাল্টে কিশোর থেকে হেমন্তর "বসে আছি পথ চেয়ে ফাগুনের গান গেয়ে"।
কফি পেগ শেষে অল্প মোরব্বায় নেশা বদল। 

শনিবার রাত রাইজেস...

৬। নেশা ভারী করে দেয় মন কে। হৃদয় দোস্ত খুঁজে বেড়ায়।হাত আঁকড়ে ধরে বাঁটুল দ্য গ্রেটের পুরনো মলাট ছেঁড়া পাতলা বইটাকে।
শনিবার তাগত পায়।

৭। আগুন ছাড়া সভ্যতা হয় না। মাতলামি ছাড়া শনিবার রাত হয় না।
অতএব প্রতুল মুখুজ্জের লাল ফৌজের গানে নিজেকে সাবমিট করে রাত বিরেতে ফৌজি পায়চারি।

৮। ভালোবাসা ছাড়া শনিবার রাতের উত্তরণ নেই। 
মাখো মাখো ভালোবাসা। ঠোঁট ছোঁয়ান আবেগ। 

তাই ফ্রিজ থেকে আলুপোস্ত বের করে গরম করে নেওয়া অসময়ের লাস্যময়তা।

৯। শনিবার রাত বিরহের সাবস্ট্যান্স কে দেবে? কে দেবে প্যাথোসের ডেনসিটি? শনিবারকে?

"তুই ফেলে এসেছিস কারে মন রে আমার"। মার গানের স্মৃতি।

১০। শনিবারের রাত যখন গনগনে আঁচে ঝলসে উঠবে।দুরন্ত ভাবে জমে উঠবে বেপরোয়া রাত জাগা। 
তখন।
সমস্ত ফাঁকি দিয়ে পাশবালিশ কোলে সবকিছু ছেড়ে সরে পড়বো।

No comments:

দাদার লাইব্রেরি

- দাদা। - কী ব্যাপার পিলু? এত রাত্রে? - মনে হল তুই হয়ত এখনও ঘুমোসনি। তাই ভাবলাম যাই একবার...। - আয়। বস। - কী পড়ছিস? -  ইংরেজি নভ...